শামি কী আসামি? উত্তর মিলবে এই প্রশ্নটা জানা গেলেই

বাংলাhunt : মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রী হাসিন জাহানের বিস্ফোরক অভিযোগের তদন্তে নেমে লালবাজারের পুলিস কর্তারা নাকি জট খুলতে পারছেন। শামি কী সত্যিই তাঁর স্ত্রীয়ের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন? সামির দাদার বিরুদ্ধে ধর্ষণ, শামির বি্রুদ্ধে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন, গড়াপেটা, নানা মহিলার সঙ্গে যৌন সংসর্গ। শামির বিরুদ্ধে এত সব অভিযোগগুলো একটা একটা করে খতিয়ে দেখছে পুলিস। সবার আগে শামীর ‘হয়ার অ্যাবাউটস’ জানতে চায় পুলিস। শামি মাঝে মাঝে দুবাইয়ে যেতেন বলে তাঁর স্ত্রী যে অভিযোগ করেন সেটা আগে ভাল করে খতিয়ে দেখতে চান তদন্তকারীরা।
শামি প্রতিহিংসা-মূলক আচরণ করছে বলেও অভিযোগ হাসিনের। ‘প্যাচ আপ না’, মহম্মদ শামি অন্য কোনও পরিকল্পনা করছে বলেও বিস্ফোরক দাবি তাঁর। একই সঙ্গে হাসিন জাহান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, শামি নিজের ক্রিকেট কারিয়ার বাঁচাতেই এই সব করছেন।

তদন্তকারীদের ধারনা শামির কল রেকর্ডস আর বিদেশ যাত্রার পুরো ডিটেলস এসে গেলেই এই কেস সলভ হয়ে যেতে পারে। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে শামি পত্নী বলেন, “শামি আমাকে মেসেজ করেছিল। বেবোর (মেয়ে) সঙ্গে কথা বলবে বলে জানায়। আমি ২০১২ থেকে শামির সঙ্গে মেসেজে কথা বলি। আমি শামির মেজাজ, কথা বলার ধরন সম্পর্কে ওয়াকিবহল। শামি নিজের মোবাইল থেকে অন্য কাউকে দিয়ে মেসেজ করাচ্ছে। আমি তখন বলি, আপনি বেবোর খেয়াল করলে এমন কদর্য কাজ কখনই করতেন না।” আরও একধাপ এগিয়ে প্রাক্তন এই মডেল অভিযোগ করেন, শামি না কি তাঁকে হুমকি দিচ্ছেন। হাসিনের দাবি, শামি হুমকির সুরে তাঁকে বলেছেন, “কী চাইছো? সব কিছু মিটিয়ে নাও।” এখানেই শেষ নয়। হাসিনের আরও দাবি, শামিকে নিজের ভুল ‘কবুল’ করার কথা বললে ভারতীয় দলের তারকা পেস বোলার না কি তাঁকে জানিয়েছে ‘শাদি তো কবুল কিয়া’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


  • Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    error: Content is protected !!