পাকিস্তানের জঙ্গি মৃত্যুর ছবি,নাকি অন্য তথ্য

 

বাংলাHunt :

পুলওয়ামায় ভারতীয় সৈনিকদের উপর পাকিস্তানি জঙ্গি সংগঠন যেভাবে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ করেছিল তার ঠিক ১২ দিনের মাথায় ভারতীয় বায়ুসেনা সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে পাকিস্তানের তিনটে জঙ্গিগোষ্ঠী ক্যাম্প উড়িয়ে দিয়েছিল এবং প্রায় ৩৫০ জনের বেশি জঙ্গি মারা গেছিল বলে সারা ভারতজুড়ে রব উঠেছিল কিন্তু সত্যি কতজন মারা গেছে তা সঠিকভাবে কেউ বলতে পারছিল না।

বিজেপির পক্ষ থেকে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বলেন প্রায় আড়াইশো জন মারা গেছে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন ৪০০ জন মারা গেছে। ভাই সেনাপ্রধান সাংবাদিক সম্মেলন করে বলেন, “জঙ্গি নিধন করা আমাদের কাজ মৃতদেহ গোনা আমাদের কাজ নয়”।এদিকে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী বলেন কতজন মারা গেছে তা সঠিক প্রমাণ দিক কেন্দ্র সরকার এই নিয়ে চাপান-উতোর তৈরি হয়েছে ।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন যেভাবে গুজব রটানো হচ্ছে তাতে কত জন জঙ্গি মারা গেছে তার সত্যতা নিয়ে অনেক প্রশ্ন রয়েছে। ভারতীয় বায়ুসেনা প্রধান জানিয়ে দিয়েছেন জঙ্গি মৃত্যু হয়েছে, কিন্তু কতগুলো হয়েছে তা তাদের পক্ষে বলা সম্ভব নয়।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম এই নিয়ে তেমন কোনও উত্তর দিচ্ছে না এদিকে ভারতবর্ষের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং জানিয়েছেন ২৫০-৩০০ মোবাইল টাওয়ার সেখানে ছিল ফলে সেখানে আড়াইশো তিনশো জঙ্গি মারা যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সিধু জানিয়েছেন, জঙ্গি মারা যায় নি বরঞ্চ গাছের মৃত্যু হয়েছে। এই সব কিছুর মূলে কতজন মারা গেছে তার সত্যতা এখনো জানা যায়নি কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি থেকে বিজেপি সমর্থকরা দাবি করছেন যে পুলওয়ামার হত্যাকাণ্ডের ১২ দিনের মাথায় ভারতীয় বায়ুসেনা যেভাবে পাকিস্তানে ঢুকে পাকিস্তানের জঙ্গিগোষ্ঠীকে আক্রমণ করেছে।

বাংলা হান্ট এই ছবির সত্যতা যাচাই করেনি ফলে কত জন মারা গেছে তা এখনো জানা যায়নি এই ছবিগুলো পাকিস্তানের কিনা তাও জানা যায়নি। ছবিতে দেখা যাচ্ছে হাজার হাজার মানুষ মারা গেছে এবং পর পর তাদের কবর দেওয়া হচ্ছে এই ছবির সত্যতা নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে কিন্তু সংবাদ সংস্থা বা পাকিস্তানি গভারমেন্টের পক্ষ থেকে কোনো রকম কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি। এদিকে বিজেপির সোস্যাল মিডিয়ায় দাবি করা হচ্ছে এত জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে।

প্রতি মুহূর্তের সব রকম খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইট করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *