মেক্সিকান বলেই কি বৃদ্ধের মুখ ইট দিয়ে থেঁতলে দেওয়া হলো!

 

বাংলা hunt ডেস্ক : ৯১ বছর বয়সী বৃদ্ধ রোডোল্ফো রড্রিগজ মেক্সিকোর মিচোয়াকান শহর থেকে আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়ায় নাতির কাছে বেড়াতে এসেছিলেন। বছরে দুবার তিনি মেক্সিকো থেকে ক্যালিফোর্নিয়ায় নাতির কাছে বেড়াতে আসেন। কিন্তু ইতিপূর্বে কখনওই তিনি ভয়াবহ পরিস্থিতির শিকার হননি। কিন্তু গুরুতর আহত অবস্থায় রড্রিগজ এখন হাসপাতালে ভর্তি। তিনি নাতির কাছে বেড়াতে এসে একটি পার্কে বেড়াতে যান। আর সেখানেই হামলার শিকার হন রড্রিগজ। অভিযোগ রড্রিগজ একা পার্কে বেড়াবার সময় এক মহিলা তার বাচ্ছাকে নিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। ওই মহিলা কোনও কারণ ছাড়াই একটি ইট তুলে নিয়ে রড্রিগজের মুখে বারংবার আঘাত করতে থাকেন এবং তাকে মারার জন্য পার্কে উপস্থিত অন্যান্যদের ডাকতে থাকেন। প্রত্যক্ষদর্শী এক মহিলা জানিয়েছেন, ওই মহিলা রড্রিগজের মুখে ইট দিয়ে আঘাত করার পাশাপাশি বারংবার বলতে থাকেন, “নিজের দেশে ফিরে যাও। মেক্সিকো থেকে এখানে কেন এসেছো।”  মিসবেল নামে ওই প্রত্যক্ষদর্শী মহিলা মোবাইলে এই ছবি তুলতে গেলে তাঁকেও ইট তুলে মারার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। লস অ্যাঞ্জেলস কাউন্ট শেরিফ দপ্তর জানিয়েছে, অভিযুক্ত মহিলা এবং আরও চারজনের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ। হঠাৎ কেন রড্রিগজকে মারা হল তার তদন্ত শুরু হয়েছে। জানা গিয়েছে, ইট দিয়ে হামলার ফলে রড্রিগজের মুখের হাড় ও চোয়াল ভেঙে গিয়েছে। পাঁজরের দুটো হাড় ভেঙেছে। পুরো মুখ থেঁতলে গিয়েছে। তার পরিবার এই হামলার প্রতিবাদ জানিয়েছে এবং বিচার চেয়ছেন।

প্রসঙ্গত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ড্রোনাল্ড ট্রাম্পের মেক্সিকো শরনার্থীদের নিয়ে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করায়, বৃদ্ধ রড্রিগজের ওপর এই অতর্কিত হামলা বলে মনে করছে আন্তর্জাতিক ওয়াকিবহাল মহল।

প্রতি মুহূর্তের সব রকম খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইট করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *