মোদী তাড়াতে সোনিয়ার নৈশভোজে বিরোধী জোটের নেতারা, মমতার প্রতিনিধি সুদীপ

বাংলাhunt : নয়াদিল্লি: আগামী বছর লোকসভা নির্বাচন। তার আগে বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট বিরোধিতাই লক্ষ্য। এরজন্য ১৭টি বিরোধী দলের সমস্ত নেতাদের এক প্ল্যাটফর্মে হাজির করতে উদ্যোগী ইউপিএ-র চেয়ারপার্সন সনিয়া গাঁধী। আজ দিল্লিতে বিরোধীদলের নেতাদের নৈশভোজে ডেকেছেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভানেত্রী। পাহাড়ে শিল্প সম্মেলনে যোগ দেওয়ায় নৈশভোজে উপস্থিত থাকছেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে তৃণমূলের তরফে থাকছেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। সিপিএমের প্রতিনিধি হিসেবে নৈশভোজে উপস্থিত থাকবেন মহম্মদ সেলিম। যোগ দেবেন বিজেপি-বিরোধী অন্যান্য দলের নেতারাও।
কংগ্রেস সূত্রে খবর, অন্ধ্রপ্রদেশের ক্ষমতাসীন দল টিডিপি, ওড়িশার বিজেডি ও টিআরএস নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। টিডিপির দুই মন্ত্রী সদ্যই মোদী মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। কিন্তু চন্দ্রবাবু নাইডুর দল এখনও এনডিএ-তেই রয়েছে। বিজেডি ওড়িশায় এবং টিআরএস তেলঙ্গানায় ক্ষমতায় রয়েছে। টিআরনেতা তথা তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রশেখর রাও সম্প্রতি তৃতীয় মোর্চা গঠনের কথা বলেছে।
কংগ্রেস সূত্রের খবর, ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা নেতা বাবুলাল মারান্ডি, ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার হেমন্ত সোরেন, বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জিতনরাম মাঁঝি বৈঠকে যোগ দেবেন।

মাঁঝি সম্প্রতি বিহারের জেডি-ইউ-বিজেপি জোট ছেড়ে সম্প্রতি লালুপ্রসাদের আরজেডি-র সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। এদিনের নৈশভোজে লালু-পুত্র তথা বিহার বিধানসভার বিরোধী দলনেতা তেজস্বী প্রসাদ আসবেন কিনা, তা নিয়ে এখনও নিশ্চিত খবর নেই।
জানা গেছে, ডিএমকে-র কানিমোঝি, সমাজবাদী পার্টির রামগোপাল যাদব, সিপিআই নেতা ডি রাজা নৈশভোজে যোগ দেবেন। জেডি-এস, কেরল কংগ্রেস, ইন্ডিয়ান মুসলিম লিগ, আরএসপি, আরএলডি নেতাদেরও যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।