মায়ানমারে মানবাধিকার লঙ্ঘনের নিন্দা নিয়ে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত

 

বাংলা hunt ডেস্ক : অবশেষে মায়ানমারে মানবাধিকার লঙ্ঘন করায় জাতিসংঘের কাছে এনিয়ে পদক্ষেপ হল। কেননা মায়ানমারে মানবাধিকার লঙ্ঘনের নিন্দা জানিয়ে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের তৃতীয় কমিটিতে একটি প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। তবে এ প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছে চীন, রাশিয়াসহ ১০টি সদস্য। আর প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে মোট ১৪২টি দেশ। জাপানসহ ২৬টি দেশ ভোটদানে বিরত থাকে।শুক্রবার জাতিসংঘ সদর দফতরে সদস্য দেশগুলোর উপস্থিতিতে উন্মুক্ত ভোটের মাধ্যমে এই প্রস্তাব গৃহীত হয়। যৌথভাবে এ প্রস্তাবটি উত্থাপন করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) এবং ওআইসি। তাদের পক্ষে প্রস্তাবটি পরিষদের সামনে তুলে ধরে বাংলাদেশ ও অস্ট্রিয়া। যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রিয়া, মেক্সিকোসহ মোট ১০৩টি দেশ ছিল এই প্রস্তাবের পক্ষপাতী।জাতিসংঘের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মায়ানমারে সবরকম মানবাধিকার লঙ্ঘনের নিন্দা জানাবে পরিষদ। এসব ক্ষেত্রে নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানানো হবে। এর মধ্যে রয়েছে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নির্যাতন। পাশাপাশি তদন্ত করা হবে সব দায়ী ব্যক্তিকে বিচারের আওতায় আনা নিশ্চিত করতে। রোহিঙ্গাদের মানবিক সংকটের বিষয়ে পরিকল্পনার জন্য ২০১৮ সালে তহবিলের নিয়ে আন্তর্জাতিক সমর্থনের জন্য পরামর্শ দেবে পরিষদ। ভোটগ্রহণের আগে ও পরে দেয়া বক্তব্যে প্রায় সব সদস্য দেশ জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের অব্যাহতভাবে মানবিক সহায়তা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার ও জনগণের অবদানের কথা উল্লেখ করে।

 

প্রসঙ্গত, অন্যায়ভাবে, মায়ানমার সেনা ও পুলিশ রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচার করে ও বাস্তুচ্যূত করে। অনেক রোহিঙ্গাই অবৈধ পথে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। আর এই ঘটনার পরই আন্তর্জাতিক মহলে রোহিঙ্গারা দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। মায়ানমার সরকাররে বিরুদ্ধে একজোট হয় আন্তর্জাতিক মহল তথা একাধিক দেশ।

আরও পড়ুন   রাজ্যে বিপর্যয় ঠেকাতে কংগ্রেসের নয়া অস্ত্র রাহুল গান্ধী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


  • Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    error: