বন্ধ তৃণমূলের ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ, ক্ষুব্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

 

অর্ণব মৈত্রঃ বন্ধ করে দেওয়া হলো তৃণমূলের ফেসবুক ও হোয়াটএপ গ্রুপ। ফেসবুকে তৃণমূলের প্রচারের জন্য TMCS ও TCCF নামে দুটো ফেসবুক গ্রুপ আছে। যে গ্রুপ দিয়ে তৃণমূলের বিভিন্ন প্রচারের পাশাপাশি এক অপরের সঙ্গে কথা বার্তা তৃণমূল কর্মীরা ও তৃণমূলে আই টি সেলের কর্মীরা। অভিযোগ, বেশ কিছু দিন ধরে এই দুই গ্রুপের এডমিন ও যারা তৃণমূলের হয়ে বেশী ফেসবুকে প্রচার করত তাদের প্রফাইল গুলো হ্যাক করে নেওয়া হতো। এমনকি ওই সব প্রফাইল গুলো হ্যাক করে তৃণমূলের প্রচার সংক্রান্ত ছবি, ভিডিও, ও বেশ কিছু লিঙ্ক গুলো ডিলিট করে দেওয়া হতো বলে অভিযোগ করেছে তৃণমূলে আই টি সেলের কর্মীরা। এমনকি ফেসবুকে প্রায় চার লক্ষের বেশে সদস্য যুক্ত FAM নামে একটি তৃণমূল গ্রুপের এডমিন  অর্ণব বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, আমার ফেসবুক প্রফাইল বেশ কয়েক দিন আগে হ্যাক হয়ে গিয়েছিলো, প্রফাইল টি বেশ কয়েক দিন পর আমি যখন রিকভারী করী তখন দেখী আমার বেশ কিছু পোস্ট প্রফাইল থেকে উধাও।

 

এই ফেসবুক গ্রুপ থেকে তৃণমূলের কর্মীরা একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করে।সোমবার রাত থেকেই সেই গ্রুপে কোন ম্যাসেজ পাঠানো যাচ্ছে না বলে অভিযোগ তোলে তৃণমূল কর্মীরা। এই সমস্যার কথা তৃণমূলের উপর মহলের কর্মীরা জানতে পেরে, দিল্লীর ফেসবুক অফিসে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন যে আজ মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যে ঠিক করে দেওয়া হবে। সেই মতো ফেসবুক প্রেমী তৃণমূল কর্মীরা দুপুর পর্যন্ত অপেক্ষা করছিলো। দুপুর গড়াতে না গড়তেই আবার দেখে যায় তৃণমূলের অফিসিয়ালি হোয়াটএপ গ্রুপ গুলো বন্ধ। সেই গ্রুপে কোন ম্যাসেজ করা যাচ্ছে না, এমনকি পূর্বের পাঠানো ম্যাসেজ গুলো সব ডিলিট হয়ে গেছে। দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যে হয়ে গেলেও হোয়াটএপ ও ফেসবুকের প্রফাইল গুলো রিকভারী না হওয়ায় যথেচ্ছ চিন্তায় পড়েছে তৃণমূল কর্মীরা। এই ভাবে ফেসবুক ও হোয়াটএপ গ্রুপ গুলো বন্ধ করে দেওয়ায় উস্মা প্রকাশ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গোটা ঘটনায় ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত বিজেপির বলে দাবী করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন যে, ‘ প্রফাইল গুলো রিকভারী না করলে আইনের দ্বারস্থ হতে হবে আমাদের।

প্রতি মুহূর্তের সব রকম খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইট করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *