জিন্স পরা মেয়েরা জন্ম দেয় বৃহন্নলা সন্তানের!

বাংলা hunt ডেস্ক : সম্প্রতি কেরলের এক অধ্যাপিকা ছাত্রীদের পোশাক নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন। তার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও ছাত্রীদের পোশাক সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করলেন কেরলের আর এক অধ্যাপক।

কেরলের কালাডির একটি কলেজের অধ্যাপক রজিথ কুমার সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে মন্তব্য করেন, ‘যে মেয়েরা পুরুষদের মতো পোশাক (জিনস) পরেন তাঁদের সন্তান কেমন হবে? এই ধরনের মহিলাদের সন্তান বৃহন্নলা বা মানসিক প্রতিবন্ধীই হয়। ইতিমধ্যেই কেরলে ৬ লক্ষ বৃহন্নলা সন্তানের জন্ম হয়েছে।’ ওই অধ্যাপকের এই মন্তব্যের অনেকেই সমালোচনা করেছেন।

একজন অধ্যাপক কিভাবে ছাত্রীদের প্রসঙ্গে এমন মন্তব্য করতে পারেন, তা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন। কিন্তু অধ্যাপক রজিথ কুমার দাবি করেছেন, তাঁর কাছে এর স্বপক্ষে বিজ্ঞান সম্মত যুক্তি রয়েছে। তবে সেটা কি, তিনি খোলসা করে কিছুই জানাননি। পাশাপাশি তিনি এপ্রসঙ্গে নিজের মত একটি যুক্তি দিয়েছেন। তাঁর দাবি বিদেশে মহিলাদের একটি বড় অংশ জিনস পরেন। ফলে সেখানে মানসিক প্রতিবন্ধী সন্তান জন্মের হার বেশি। তাঁর ওই মন্তব্যকে ঘিরে রাজ্যজুড়ে অনেকেই সমালোনায় সরব হয়েচেন।

প্রসঙ্গত, কেরলের এক অধ্যাপিকা ছাত্রীদের পোশাক নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘ছাত্রীদের পোশাক আজকাল শালীন নয়। তারা ওড়না ব্যবহার করে না। এমনভাবে বক্ষ প্রদর্শন করে যেন খোলা তরুমুজের প্রদর্শনী। এই মন্তব্যের পরই ছাত্রছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণেই প্রতিবাদ জানায়।

প্রতি মুহূর্তের সব রকম খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইট করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *