নজিরবিহীন, রাজ্যের ৫৭২ টি বুথে পুনর্নির্বাচন আজ

 

বাংলা hunt ডেস্ক : রাজ্যের ১৯ টি জেলার ৫৭২ টি বুথে আজ পুনঃনির্বাচন। গত ১৪ই মে রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে সন্ত্রাস রাজ শুরু হয়েছিল, তার ফলে অনেক বুথে ভোট বানচাল হয়ে যায়। এরফলে আজ ঝাড়গ্রাম বাদে ১৯ টি জেলায় ৫৭২টি বুথে সকাল সাতটা থেকে পুর্ননির্বাচন শুরু হয়েছে। সূত্রের খবর, সকাল থেকেই কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে এই বুথগুলি। পাশাপাশি বেশ লম্বা লাইন ও চোখে পড়েছে এই ভোটগ্রহণ কেন্দ্রগুলিতে।

প্রসঙ্গত ৫৭২টি বুথের পুনঃনির্বাচনের এই প্রতিচ্ছবি কার্যত এ রাজ্যে নজিরবিহীন। ইতিপূর্বে এতগুলি বুথে পুনঃনির্বাচন হয়নি। এদিন উত্তর দিনাজপুরের ৭৩টি, মুর্শিদাবাদের ৬৩টি,মালদার ৫৫টি,কোচবিহারের ৫২টি,উত্তর ২৪ পরগনার ৫৯টি,হুগলির ১০টি,পশ্চিম মেদিনীপুরের ২৯টি,জলপাইগুড়ির ৫টি,পুরুলিয়ার ৭টি,নদিয়ার ৬০টি,দক্ষিণ দিনাজপুরের ৩৫টি,পশ্চিম বর্ধমানের ৩টি,বীরভূমের ৬টি,বাঁকুড়ার ৫টি,দক্ষিণ ২৪ পরগনার ২৯টি,পূর্ব মেদিনীপুরের ২৪টি,আলিপুরদুয়ারের ২টি,পূর্ব বর্ধমানের ১৭টি এবং হাওড়ার ৩৮টি বুথে পুর্নর্নিবাচন হচ্ছে। উল্লেখ্য, এই বুথগুলিতে রাজনৈতিক দলগুলির গোষ্ঠী সংঘর্ষ, ভোটারদের ভোট দিতে না দেওয়া, ব্যালট বাক্সগুলি ভেঙে দেওয়া, জলে ফেলে দেওয়া, বা বুথে ভাঙচুর, বোমাবাজি, খুন সহ একাধিক হিংসাত্মক ঘটনার কারণে ভোট বানচাল হয়ে যায় ১৪ মে। সেইকারণেই এই ৫৭২ টি বুথে পুনর্নির্বাচনের নির্দেশ দিয়েছে কমিশন। তবে পুনরায় যাতে এই বুথগুলিতে অশান্তির বাতাবরণ তৈরি না হয়, তারজন্য নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে এবং পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অবশ্যই উল্লেখ্য, উত্তর দিনাজপুরের সর্বোচ্চ ৭৩টি বুথে ভোটগ্রহণ হবে।