ঢাকায় ছাত্র আন্দোলনে পুলিশি লাঠি চালনায় রক্তপাত, আক্রান্ত সংবাদমাধ্যম

 

বাংলা hunt ডেস্ক : গত এক সপ্তাহ ধরে নিরাপত্তার দাবিতে ঢাকায় ছাত্র আন্দোলন চলছে। কিন্তু গতকাল এই ছাত্র আন্দোলনে পুলিশি লাঠি চালনায় রক্তাক্ত ঢাকার রাজপথ। পুলিশের বিরুদ্ধে অভব্যতার অভিযোগ উঠেছে। আন্দোলনরত পড়ুয়ারা দাবি করেছে, কোনরকম প্ররোচনা ছাড়াই আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর লাঠি চালায় ঢাকা পুলিশ। পাশাপাশি কাঁদানে গ্যাসের সেল ব্যবহার করা হয় তাদের ছত্রভঙ্গ করতে। আত্মরক্ষার্থে অনেক ছাত্র রাস্তার পাশের জলশয়ে ঝাঁপ দেয়। এই ঘটনায় কমপক্ষে ৫০ জন ছাত্র আহত হয়েছে। জানা গিয়েছে, রবিবার দুপুরে কয়েক হাজার পড়ুয়া ‘ভুয়ো ভুয়ো’ স্লোগান তুলে জিগাতলার দিকে মিছিল নিয়ে যায়। সেই মিছিলে কোন প্ররোচনা ছাড়াই প্রায় পঁচিশটি কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোড়ে পুলিশ। পাশাপাশি তাদের লক্ষ্য করে পাথরও ছোড়া হয় বলে অভিযোগ। এছাড়াও তাদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠি চালনা করা হয়। এছাড়াও ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই ঘটনায় ছবি তুলতে গিয়ে বেশ কয়েকজন চিত্রসাংবাদিকও আহত হন। এবং পুলিশ শহিদুল আলম নামে এক চিত্রসাংবাদিককে গ্রেপ্তার করেছে। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে ঢাকায় অবস্থিত মার্কিন দূতাবাস। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মহলও এই ঘটনার নিন্দায় সরব হয়েছে।কিন্তু ঠিক কি কারনে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে ঢাকা পুলিশ, তার কোনও সদুত্তর মেলেনি।

আজ ঢাকার রাজপথ সহ বেশকিছু জায়গায় বাস চলাচল ও যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। যেমন মিরপুর, আগারগাঁও, মহাখালী, বনানী, কুর্মিটোলা, বিশ্বরোড ও প্রগতিসরণি সহ একাধিক এলাকা। যদিও এই সমস্ত স্থানে অফিস ও নিত্যযাত্রীদের ভীড় চোখে পড়েছে। কোনও ছাত্র-ছাত্রীদের দেখা মেলেনি। পাশাপাশি যানজট পরিলক্ষিত হয়নি।

প্রসঙ্গত, প্রায় গত এক সপ্তাহ ধরে পথ নিরাপত্তা নিরাপত্তার দাবিতে ঢাকায় আন্দোলনে শামিল হয়েছে কলেজ ও স্কুল পড়ুয়ারা। কয়েক দিন আগে দুর্ঘটনায় কলেজে যাওয়ার পথে দুই পড়ুয়ার মৃত্যু হয়। তারপর থেকেই এই আন্দোলন চলছে। যদিও গতকালের ঘটনার পর আজ পরিস্থিতি বেশ কিছুটা স্বাভাবিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


  • Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    error: