বন্ধের মুখে বুলেট ট্রেনের কাজ! জেনে নিন কেন…

 

বাংলা hunt ডেস্ক :‌ জমির জন্য বিক্ষোভ নতুন কিছু নয় ভারতে, সিঙ্গুরের জমি আন্দোলনের জেরে বাতিল হয়ে গিয়েছিল টাটাদের ন্যানো কারখানা। একইভাবে মহারাষ্ট্রেও হয়েছে এই আন্দোলন। সৌদি আরবের কোনও এক কোম্পানির রিফাইনারি গড়তে পারেনি জমি আন্দোলনের জেরে। এবার এই কোপে পড়লেন মোদি। ডিসেম্বরেই শেষ হওয়ার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বপ্নের প্রোজেক্ট মুম্বই–আহমেদাবাদ বুলেট ট্রেন। জাপানের সহযোগিতায় তৈরি হচ্ছে এই প্রোজেক্টটি। মোদির এই স্বপ্নের প্রকল্পের কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছেন কৃষকরা। অভিযোগ এই প্রোজেক্টের জন্য যে জমি প্রয়োজন তা অধিগ্রহণ করা হচ্ছে। আর এই জমি অধিগ্রহণ ঘিরেই শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। ফল চাষীরা জমি দিতে নারাজ। বিক্ষোভ শুরু করেছেন তাঁরা।এদিকে প্রতি সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে কাজের।

টোকিও থেকেও খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু সবেদা ও আম চাষীরা তাঁদের জমি দিতে নারাজ। যদিও ভারতের সরকারি আধিকারিকরা দাবি করেছেন আলোচনার মাধ্যমে এই জট শীঘ্রই কাটিয়ে উঠবেন তাঁরা।মুম্বই—আহমেদাবাদ বুলেট ট্রেন প্রকল্পের জন্য ১০৮ কিলোমিটার চওড়া করিডর তৈরি হচ্ছে। তার জন্য ওই রুটের একাধিক জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু আম এবং সবেদা চাষীদের দাবি বছরের পর বছর পরিশ্রম করে তাঁরা জমিতে ফল ফলান। এটাই তাঁদের রুটি রুজি। এখানকার ফলন দিয়েই তাঁদের সংসার চলে। ছেলে মেয়েরা খেতে পায়। এই জমি তাঁরা কিছুতেই ছাড়বেন না। বুলেট ট্রেনের জন্য নিজের রুটিরুজি ত্যাগ করতে পারবেন না।আর এক বিক্ষোভকারী আম চাষীর দাবি, তিনি জমি দিতে রাজি তবে তার বিনিময়ে তাঁর দুই ছেলেকে সরকারি চাকরি দিতে হবে। কাজেই মোদির এই প্রোজেক্ট এখন কতটা সার্থক হবে তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।