কলকাতায় নবজাগরণের পথিকৃৎ বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করল এস ইউ সি আই

 

পশ্চিম মেদিনীপুর:-  কলকাতায় নবজাগরণের পথিকৃৎ বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করল এস ইউ সি আই কমিউনিস্ট দল । ন্যক্কারজনক এই ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার দলের পক্ষ থেকে সারা বাংলা প্রতিবাদ দিবস হিসেবে দিনটি পালনের ডাক দেওয়া হয়। সারা রাজ্যের সাথে জেলা শহর মেদিনীপুর, বেলদা, খড়গপুর, সবং,পিংলা সহ জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এদিন প্রতিবাদ মিছিল, ধিক্কার মিছিল, সভা করা হয়। ছাত্র সংগঠন ডিএসও, যুব সংগঠন ডিওয়াইও, মহিলা সংগঠন এমএসএস’র পক্ষ থেকেও এদিন নানা প্রতিবাদী কর্মসূচি নেওয়া হয়। মূর্তি ভাঙার বিষয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান দলের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সম্পাদক নারায়ন অধিকারী। কর্নেলগোলা দলের জেলা অফিস থেকে মিছিল শুরু হয়ে শহর পরিক্রমা করে বিদ্যাসাগর মূর্তির পাদদেশে প্রতিবাদ সভা সংগঠিত করা হয়। নেতৃত্ব দেন প্রাণতোষ মাইতি, দেবাশীষ আইচ, দীপক পাত্র প্রমুখ। বিদ্যাসাগর মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা জানান নেতৃবৃন্দ। সভা থেকে বিজেপির এই ঘৃণ্য কাজের তীব্র নিন্দা করা হয়। শিক্ষক নেতা উত্তম প্রধান বলেন “আজ যারাই যুক্তিবাদী চিন্তার প্রসার ঘটাতে চাইছে তাঁদেরকেই খুন করছে বিজেপি। মহান মনীষীদের যুক্তিবাদী চিন্তা যাতে মানুষ বহন করতে না পারে তাই তাঁদের মূর্তি ভাঙছে এই ঘৃণ্য গেরুয়া শিবির।” তিনি আরো বলেন “হিন্দুত্বের ধ্বজাধারী এই সমাজবিরোধীরা আসলে হিন্দুপ্রেমীও নয়। এরা অন্ধতা, বর্বরতার প্রেমী। তাই যারাই যুক্তিবাদের চর্চা করেছে তাঁদের উপর আক্রমণ নামিয়ে এনেছে।” তীব্র ধিক্কার জানিয়ে তিনি জানান “ইতিমধ্যেই গেরুয়া মূর্তিখোরদের তান্ডবে ত্রিপুরায় লেনিন মূর্তি, সুকান্ত মূর্তি, উত্তরপ্রদেশে

আম্বেদকরমূর্তি,তামিলনাড়ুতে পেরিয়ারের মূর্তি,
ব্যারাকপুরে মৌলানা আবুল কালাম আজাদের মূর্তি,অসমে রবীন্দ্রনাথ মূর্তি,আজ বাংলায় বিদ্যাসাগর মূর্তি ভুলুন্ঠিত হয়েছে।” তাই এই শিবির গোটা দেশের পক্ষেই অশনি সংকেত বলেও তিনি জানা।

অমিত শাহের রোড শো কে ঘিরে কলকাতায় এ হেন বর্বরতায় জড়িতদের শাস্তির দাবি জানানোর পাশাপাশি এই ঘটনার প্রতিবাদে সর্বস্তরের শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষকেও এক হওয়ার বার্তা দেন বক্তারা।

প্রতি মুহূর্তের সব রকম খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইট করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *