শেয়ার করুন

 

 

বাংলা hunt ডেস্কঃ  আরবে পণ্যের মতই বিক্রি হচ্ছে নাবালিকারা। ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশের মত দেশের নাবালিকাদের পাচার করা হচ্ছে আরবে। এমন এক রিপোর্ট প্রকাশ করল এক ইউরোপিয় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা।

 

গত বছর নিজের স্বামীর বিরুদ্ধে তাঁদের নাবালিকা কন্যাকে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন হায়দরাবাদের এক মহিলা। ওই মহিলা অভিযোগ করেছিলেন, ওমানের এক নাগরিকের কাছে নাবালিকা কন্যাকে বিক্রি করে দিয়েছে তাঁর স্বামী। সেই ঘটনার তদন্তে নেমে নিজামের শহরে এক বড়সড় চক্রের সন্ধান পেল পুলিশ। ঘটনায় ওমান ও কাতারের আটজন নাগরিক ও তিনজন কাজিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

হায়দরাবাদের পুলিশ কমিশনার এম মহিন্দর রেড্ডি জানিয়েছেন, শহরের নাবালিকাদের মোটা টাকার বিনিময়ে ওমান, কাতার-সহ আরবের বিভিন্ন দেশে পাচার করার জন্য একটি চক্র গড়ে উঠেছে। এই চক্রের সঙ্গে জড়িত কাজি, দালাল ও একশ্রেণির লজমালিকরা। মূলত এদের সাহায্যেই হায়দরাবাদের নাবালিকা কন্যাদের বিয়ে করে আরবের শেখরা। পরে তাদের আরবের বিভিন্ন দেশে পাচার করে দেওয়া হয়। পুলিশ কমিশনার জানিয়ে্ছেন, ধৃতদের মধ্যে পাঁচজন ওমানের নাগরিক। বাকি তিনজন কাতারের বাসিন্দা। পাশাপাশি, মুম্বইয়ের প্রধান কাজি ফারিদ আহমেদ খান-সহ তিন জন কাজিকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। আটক করা হয়েছিল চারজন লজমালিক ও পাঁচজন দালালকে।

loading...
Loading...

আপনার মতামত প্রদান করুন