তাৎক্ষণিক তিন তালাক সংশোধনী বিল পাশ, এক ঝলকে জেনে নিন কি কি পরিবর্তন হলো!

 

বাংলা hunt ডেস্ক : এনডিএ সরকার ক্ষমতায় আশার পর তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিল পাশ যথেষ্ঠ প্রশংসা কুড়িয়েছে। এরপর বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় তাৎক্ষণিক তিন তালাক সংশোধনী বিল পাশ হয়ে গেল। এই বিলের আওতায় একাধিক সংশোধন অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। উল্লেখ্য, এনডিএ সরকার ২০১৭ সালে যে তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিল পাশ করে, সেই বিলেই এই সংশোধনী আনা হয়েছে। আর এই সংশোধনী নয়া বিলে একদিকে যেমন মহিলাদের নিজস্ব দাবি তুলে ধরার সুযোগ দেওয়া হয়েছে, তেমন আরও বেশ কয়েকটি সংশোধন আনা হয়েছে বিলে।

প্রথমত, তিন তালাক বিলের সংশোধিত অংশে মহিলাদের ক্ষমতায়নকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। এবার থেকে তাৎক্ষণিক তিন তালাক প্রাপ্ত মহিলারা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে নিজের ও নাবালক সন্তানের খোরপোষের দাবি করতে পারবেন। পাশাপাশি নাবালক ও নাবালিকা সন্তানের দায়িত্বও চাইতে পারবেন। পাশাপাশি এই বিলে উল্লেখ করা হয়েছে, তাৎক্ষণিক তিন তালাক যেমন, মুখে, ফোনে বা সোশ্যাল মিডিয়া যেমন ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ বা মেসেজের মাধ্যমে তিন তালাক অবৈধ বলে বিবেচিত হবে। এই আইন অমান্য করলে তিন তালাক প্রদানকারী আইনের চোখে অভিযুক্ত চিহ্নিত হবেন। পাশাপাশি তার তিন বছরের সাজা ও জরিমানা হতে পারে। অন্যদিকে, জেলাশাসক তিন তালাক মামলায় অভিযুক্তকে জামিন দিতে পারবেন, তেমনি জামিন অযোগ্য অপরাধে অভিযুক্ত হলেও, জেলা শাসকের কাছে জামিনের জন্য আবেদন করা যাবে।

প্রসঙ্গত, অবশ্য এই বিল পাস হওয়ার পরেও একাংশের মতে এই বিলটিতে অনেক ফাঁক থেকে গিয়েছে। কারণ জেলা শাসকের কাছে জামিনের জন্য দরবার করার সুযোগ পাচ্ছে অভিযুক্ত। এর ফলে অভিযুক্ত সহজেই জামিন পেয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে আইনের সীমাবদ্ধতাই পরিলক্ষিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *